শেখ সফি (০১-০৭-১৮)
সরকারী চাকুরীর স্বাভাবিক নিয়মে বদলীজনিত কারণে মুজিবনগর থেকে বিদায় নিলেন দক্ষ ও জনপ্রিয় কৃষি অফিসার মুহ: মোফাকখারুল ইসলাম। মুজিবনগর অফিসার্স কাবের পক্ষ থেকে আজ রবিবার এই গুনি কর্মকর্তাকে বিদায় সংবর্ধনা জানানো হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদা আক্তারের সভাপতিত্বে সূর্যোদয় ডাকবাংলাতে এক অনাড়ম্ব বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমশিনার (ভূমি) মুজিবনগর মেজবাহ উদ্দিন, মুজিবনগর থানা ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম, উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরে অফিস প্রধানগন, ব্যাংক ম্যানেজারগনসহ অফিসার্স কাবের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ। কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে চাকুরীর স্বাভাবিক নিয়মে কৃষি অফিসার মুহ: মোফাকখারুল ইসলামকে সম্প্রতি ঝিনাইদহ সদর উপজেলায় বদলী করা হয়েছে। ব্যক্তিগত জীবনে অত্যন্ত মেধাবী এই কর্মকর্তা কৃষি নির্ভর মুজিবনগর উপজেলার কৃষিতে ব্যাপক ইতিবাচক ও দৃশ্যমান পরিবর্তন এনেছে। যে কারনে তিনি উপজেলার প্রতিটি গ্রামের সাধারন মানুষের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন। সততা ও নিষ্ঠার সাথে নিরলসভাবে কাজ করার স্বীকৃতিস্বরুপ ইতিমধ্যে তিনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে জনপ্রশাসন সনদ, খুলনা বিভাগের শ্রেষ্ট কর্মকর্তা এবং ২০১৫ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত পর পর তিনবার মেহেরপুর জেলার শ্রেষ্ট কর্মকর্তা হিসেবে পুরষ্কৃত হয়েছেন। কর্মক্ষেত্রে সফল ও নিরহংকারী এই কর্মকর্তার কর্মদক্ষতার কারনে মুজিবনগর উপজেলার শস্য নিবিড়তা এখন ২৬৬%। কৃষির নতুন নতুন আধুনিক, টেকসই ও লাগসই প্রযুক্তি ব্যবহারে তিনি সদা সর্বদা কৃষকদের উৎসাহিত করেছেন। এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি জানান সাধারন মানুষের ভ্যাটের টাকায় আমার বেতন ভাতা হয় সুতরাং তাদের সেবা করার মধ্যেই তো সত্যিকারের আতœতৃপ্তি। তিনি খুব দ্রুত ঝিনাইদহ জেলার সদরে যোগদান করবেন মর্মে জানা যায়। বিদায় বেলায় তিনি সকলের দোয়া ও আশির্বাদ কামনা করেছেন।