স্টাফ রিপোটারঃ ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ইং
উৎসবমুখর পরিবেশে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হলো “টেকসই উন্নয়নের জন্য শান্তি আইন প্রণয়নের” দাবিতে ‘বিশ্ব শান্তি সম্মেলন-২০১৯’। হেভেনলি কালচার ওয়ার্ল্ড পিস রিস্টোরেশন অব লাইট-এইচডাব্লিউপিএল এর উদ্যোগে বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১১০টি দেশে এটি অনুষ্ঠিত হলো। এ উপলক্ষে আজ রাজধানীর ডেমরার শামসুল হক খান স্কুল অ্যান্ড কলেজের বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী।
‘অভিন্ন আমরা’, শান্তির এ বাণী সারাবিশ্বে ছড়িয়ে দিতে রাজধানীর অদূরে ডেমরার সামসুল হক খান স্কুল এন্ড কলেজে এই শান্তি নিয়ে কাজ করা দক্ষিণ কোরিয়া ভিত্তিক সংগঠন এইচডাব্লিউপিএল’র ব্যানারে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সমবেত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বিশ্ব শান্তির প্রয়োজনীয়তা নিয়ে কথা বলেন, অনুষ্ঠানের দেশী-বিদেশী অতিথিরা।
বিশ্ব শান্তি সম্মেলনের চিঠি শিক্ষার্থীদের মাঝে পড়েন এবং ভবিষ্যতের প্রজন্মের কাছে শান্তির উত্তরাধিকার রেখে যাওয়ার গুরুত্ব প্রদান করেন। এসময় বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা তাদের লেখা চিঠিপত্র প্রধানমন্ত্রী, সংসদ স্পিকার এবং প্রধান বিচারপতি ও বৈদেশিক বিষয়ক মন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর হাতে পৌঁছে দেওয়ার জন্য তুলে দেন। বিশ্ব শান্তি ও দেশের উন্নয়নের স্বার্থে শিক্ষার্থীদের কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরি।
অনুষ্ঠানের ফাঁকে ফাঁকে শিশু কিশোরদের পরিবেশনা অনন্দ দেয় অতিথিদেরকে। শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নেওয়া ‘শান্তির বাণী’ বিশ্ব দরবারে পৌঁছে দেওয়ার অঙ্গীকার করেন অতিথিরা।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা দক্ষিন সিটি মেয়র (ভারপ্রাপ্ত) আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান মোল্লা, কোরিয়া এইচ ডাব্লিউপিএল এর ভাইস ডিরেক্টর জিসু কিম, জেনারেল ডিরেক্টার রবার্ট লিইউন, পিস এ্যাম্বাসিডর বৈশাখী টিভির চিফ এঢিটর সাইফুল ইসলাম, এ্যাম্বাসিডর বিটির নির্বাহী প্রযোজক জাহিদুল ইসলাম, এ্যাম্বাসিডর প্রধান শিক্ষাক জাকির হোসেন।
শামসুল হক খান স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ ও পিস এ্যাম্বাসিডর ডাঃ মাহবুবুর রহমান মোল্লা সভাপতির বক্তব্যে তিনি, আন্তর্জাতিক শান্তি যুব গোষ্ঠী (আইপিওয়াইজি) এর নেতৃত্বাধীন “পিস লেটার ক্যাম্পেইন” এ শিক্ষার্থীদের শান্তি শিক্ষার সচেতনতা বাড়ানো ও শান্তি গঠনে যুবকদের ভূমিকাও তুলে ধরেন।
অনুষ্ঠান বাস্তবায়ন করে সংস্কৃতি, বিশ্ব শান্তি, আলোর পুনরুদ্ধার (এইচডব্লিউপিএল), ওয়েস্টার্ন বুশান শাখা, কোরিয়া। এসময় এইচ.ডব্লিউ পিএল, সরকারী কর্মকর্তা, ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ, এবং এবং মিডিয়ার সাংবাদিককেরা উপস্থিত ছিলেন।